হোমনার ঘাড়মোড়া বাজারের ব্যবসায়ী জামাল অপহরণের একদিন পরও উদ্ধার হয়নি

হোমনা উপজেলার ঘাড়মোড়া বাজারের টেলিকম ব্যবসায়ী মো. জামাল ইসলামকে অপহরণের অভিযোগ উঠেছে। অপহরণের একদিন এক রাত পার হলেও তিনি এখনো উদ্ধার হননি। ভিকটিমের স্ত্রী হালিমা লিলি জানান, গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা সাতটার দিকে ঘাড়মোড়া বাজার থেকে ব্যাটারী চালিত অটোরিক্সাযোগে বোনের বাড়ি উপজেলার নিলখি লালবাগ গ্রামে যাওয়ার পথে তিনি অপহরণের শিকার হন।

স্ত্রী লিলি আরো জানান, তার স্বামী জামাল উদ্দিন বোনের বাড়িতে যাওয়ার জন্য যে অটোরিক্সায় উঠেছিলেন উপজেলার ঘাড়মোড়া গ্রামের সেই আটো চালক তাকে জানিয়েছেন, তার স্বামী দোকান থেকে বের হয়ে উপজেলার নিলখি লালবাগ গ্রামে যাওয়ার উদ্দেশ্যে। তখন ঐ অটোতে তার স্বামী জামালকে ছাড়াও আরো তিন যুবক ও একজন নারী ছিলেন। অটোরিক্সাটি ঘাড়মোড়া কালির বিল্ডিংয়ের কাছে এলে একটি কালো রঙের এবং একটি সাদা রঙের মাইক্রোবাস এসে অটোরিক্সার সামনে থামে।

এ সময় অটোতে থাকা তিন যুবক ও নারী জামালকে জোর করে মাইক্রোতে উঠিয়ে দ্রুত চলে যায়। স্ত্রী লিলি জানান, শুক্রবার সন্ধ্যার সময় তার স্বামী তাকে ফোনে জানিয়েছেন তিনি এখন লালবাগ গ্রামের তার বোনের বাড়িতে যাওয়ার জন্য রওয়ানা হচ্ছেন। কিন্তু যেখানে অটোতে করে আসতে পনের মিনিট সময় লাগার কথা সেখানে একঘন্টা পরও বোনের বাড়িতে না পৌঁছায় আমি আমার স্বামীর মোবাইলে বার বার ফোন করতে থাকি। কিন্তু এর পর স্বামীর মোবাইল নাম্বারে বার বার ফোন করলেও সেটি বন্ধ পাওয়া যায়। পরে সম্ভাব্য সকলস্থানে খোঁজ নিয়ে কোথাও তার খোঁজ না পেয়ে রাতে হোমনা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করি।

হোমনা থানার ওসি আবুল কায়েস আকন্দ জানান, এ ব্যাপাারে নিখোঁজের স্ত্রী লিলি আক্তার বাদী হয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে হোমনা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। সাধারণ ডায়েরির সূত্র ধরে আমরা তাকে খুঁজে বের করতে চেষ্টা চালাচ্ছি। তার স্ত্রীর কথা মতো সে যে অটোতে করে যাচ্ছিলেন সেই অটো চালককে থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। উল্লেখ্য মো. জামাল ইসলাম দীর্ঘ দিন প্রবাসে থেকে সম্প্রতি দেশে এসে বড় ভগ্নিপতি মো. এনামুলের সাথে ঘাড়মোড়া বাজারে টেলিকম ব্যবসায় যোগ দেন। স্ত্রী লিলি স্বামীকে উদ্ধারে প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

বার্তা প্রেরক
মোঃ কামাল হোসেন
হোমনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধি

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন