ঝিনাইদহে ইজিবাইক চালক হত্যার ঘটনায় ৬ জন গ্রেফতার, ইজিবাইক ও হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত ছুরি উদ্ধার

ঝিনাইদহে চালককে খুন করে ইজিবাইক ছিনতাইকারী গ্যাং এর ৬ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার ভোররাতে ঝিনাইদহ, কালীগঞ্জ ও কুষ্টিয়ার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে পুলিশ তাদেরকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতরা হলো কালীগঞ্জের পীরগোপাল গ্রামের মসলেম উদ্দিন মোল্লার ছেলে তানভীরুল ইসলাম নাইম (২৩), কাশিপুর গ্রামের আব্দুল আজিজের ছেলে জাকির হোসেন (২৭), সদর উপজেলার চান্দেরপোল গ্রামের আব্দুল বারেক বিশ্বাসের ছেলে শামমি হোসেন, (২৪), একই গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে রাশেদ আলী (২৬), মাগুরা শালিখা উপজেলার ছান্দাড়া গ্রামের আরজ আলী মন্ডলের ছেলে বাপ্পি হোসেন (২৬), কাতলী গ্রামের ইউনুছ আলীর ছেলে সাগর মোল্লা ওরফে সৈকত (৩১)। তাদের কাছ থেকে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত চাকু ও ছিনতাইকৃত ইজিবাইকটি উদ্ধার করা হয়।

এ ব্যাপারে শুক্রবার সকালে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ঝিনাইদহ পুলিশ সুপার মুনতাসিরুল ইসলাম, সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল বাশার, গোয়েন্দা পুলিশের ওসি আনোয়ার হোসেন, কালীগঞ্জ থানার ওসি মাহফুজুর রহমান মিয়া। সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার মুনতাসিরুল ইসলাম বলেন, গত ১২ অক্টোবর ঝিনাইদহ সদর উপজেলার তেতুলবাড়িয়া গ্রামের ইজিবাইক চালক ইকরামুল ইসলামের ইজিবাইক ভাড়া নেয় আসামীরা। পরে তাকে কালীগঞ্জ উপজেলার রাকড়া গ্রামের মাঠের ধানক্ষেতের মধ্যে জবাই করে হত্যা করে।

হত্যার পর তারা ইজিবাইকটি নিযে চলে যায়। এরপর থেকে ইজিবাইক চালক ইকরামুল নিখোঁজ থাকে। হত্যাকান্ডের ৮দিন পর গত ২০ অক্টোবর ইকরামুলের পঁচা-গলা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় নিহতের বড় ভাই রবিউল ইসলাম বাদি হয়ে কালীগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দাযের করে। পুলিশ তদন্ত করে হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত ৬ জনকে গ্রেফতার করে। এছাড়াও হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত চাকু ও ছিনতাইকৃত ইজিবাইকটি উদ্ধার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের দুপুরের দিকে ঝিনাইদহ আদালতে সোপর্দ্দ করা হয়েছে।

বার্তা প্রেরক
মনিরুজ্জামান সুমন
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন