করোনা কালেও এসডিজি বাস্তবায়নে এগিয়েছে বাংলাদেশ

জাতিসংঘ ঘোষিত টেকসই উন্নয়ন লক্ষমাত্রা (এসডিজি) সকল শর্ত পূরণে বাংলাদেশ অনেক সচেষ্ট। এমনকি করোনা কালেও এসডিজি বাস্তবায়নে বাংলাদেশ অনেক দেশের থেকে এগিয়ে রয়েছে। এসডিজি অর্জনে বিশ্বের যে তিনটি দেশ সবচেয়ে এগিয়ে আছে, তার মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশ। জাতিসংঘের সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট সলিউশনস নেটওয়ার্কের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য দেওয়া হয়েছে। এতেই বোঝা যায় বাংলাদেশ এসডিজি বাস্তবায়নে খুবই দ্রুততার সাথে আগাচ্ছে। বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) দুপুরে বাগেরহাট অফিসার্সক্লাব মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত টেকসই উন্নয়ন লক্ষমাত্রা (এসডিজি) বাস্তবায়ন, অগ্রগতি পর্যালোচনা ও পরামর্শ সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

এ্যাকশন এইডের সহযোগিতায় বাধন মানব উন্নয়ন সংস্থার আয়োজনে অনুষ্ঠিত সভায়, প্রধান অতিথি ছিলেন, স্থানীয় সরকার বিভাগ,. বাগেরহাটের উপ-পরিচালক দেব প্রসাদ পাল। সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন, বাগেরহাট সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মুছাব্বেরুল ইসলাম, সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা ডা. প্রদীপ কুমার বখশী, খানজাহান আলী ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ আসিফ উদ্দিন রাখি, সদর উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা শেখ মোঃ আজগর আলী, শহর সমাজসেবা কর্মকর্তা এসএম নাজমুস সাকিব, বাগেরহাট প্রেসক্লাবের সভাপতি নিহার রঞ্জন সাহা, কনজ্যুমার এ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ, বাগেরহাটের সভাপতি বাবুল সরদার, ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আক্তারুজ্জামান বাচ্চু, শেখ বশিরুল ইসলাম, বাঁধন মানব উন্নয়ন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক এ.এস. এম. মঞ্জুরুল হাসান মিলন, একশন এইডের ইন্সপ্রাইরেটর ওবায়াদুল্লাহ আল ইমন, বাঁধনের প্রকল্পের সম্বনয়কারী খোন্দকার মুশফিকুল ইসলাম, সোহাগ হাওলাদার, বাধন ইয়ুথ গ্রুপের সামিয়া আক্তার রুপা, সুস্মিতা আক্তার, মোঃ আলিমুজ্জামান, আবু সাইদ প্রমুখ। সভায়, জাতিসংঘ ঘোষিত এসডিজির বিভিন্ন গোল ও নির্দেষকের বিষয়ে আলোচনা করা হয়। এসব গোল বাস্তবায়নে বাগেরহাটের বর্তমান অবস্থা ও করনীয় সম্পর্কে তুলে ধরা হয়। এসডিজি বাস্তবায়নে বিভিন্ন সুপারিশের কথা উল্লেখ করেন বক্তারা। এসডিজি বিষয়ক এই সভায় বাগেরহাটে কর্মরত বিভিন্ন শ্রেণি পেশার শতাধিক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি অংশগ্রহন করেন।

বার্তা প্রেরক
তানজীম আহমেদ
বাগেরহাট প্রতিনিধি

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন